Eksho Bochor Dhore Lyrics (একশো বছর ধরে) Arijit Singh

Eksho Bochor Dhore Lyrics by Arijit Singh

Eksho Bochor Dhore Lyrics Is an East Bengal Theme SongThis Song Is Sung By Arijit SinghMusic composed by: Arindom. This Song’s Lyrics were Created By Raja Chanda and Prosen.

Song Details:
Song: Eksho Bochor Dhore
Singer: Arijit Singh
Lyrics: Raja Chanda and Prosen
Music composed by: Arindom
Music Label: Bangal Brigade TV
Album: East Bengal Theme Song
Eksho Bochor Dhore Song Lyrics in Bengali
ইতিহাস সাক্ষী হলো,
পায়ে পায়ে স্বপ্ন এলো।
কাঁটাতার টপকালো ফুটবল।
রক্তে ছিল যে লাল,
জ্বললো হলুদ মশাল,
ফেলে আসা স্মৃতিটা সম্বল।
জার্সি মানেই আমার মা,
আর তো কিছুই জানি না।
সাপোর্টারের সাহস বুকে,
উধাও হল ভয়।
জার্সি মানেই আমার মা,
আর তো কিছুই জানি না ।
সবুজ ঘাসে লড়াই করে
ছিনিয়ে নেবো জয়।
একশো বছর ধরে
মাঠ কাঁপাচ্ছে যে দল
লাল হলুদের ঝড়ের নাম ইস্টবেঙ্গল।
আমরাই দামাল ঘোড়া,
দুচোখে বারুদ ভরা।
বলে বলে সবাই দেবো গোল
গ্যালারির হৃদয় জুড়ে
ভালবাসা দিচ্ছি ছুঁড়ে
বাড়ি ফিরে ইলিশ মাছের ঝোল।
জার্সি মানেই আমার মা,
আর তো কিছুই জানি না
দর্শকের ঐ গর্জনে মাঠ উথালপাথাল
জার্সি মানেই আমার মা
আর তো কিছুই জানি না
এক কিকে তে গোলপোস্টের 
যাচ্ছে ছিঁড়ে জাল ।
একশ বছর ধরে
মাঠ কাঁপাচ্ছে যে দল
লাল হলুদের ঝড়ের নাম ইস্টবেঙ্গল।
কাঁপাবে কাঁপাবে কাঁপাবে,
মাঠের ভেতর দাপাবে
প্রতিপক্ষ উপলক্ষ
যত যা রেকর্ড ছাপাবে
বাঁচবে তারা হাঁফ ছেড়ে
হেরে ভুত হয়ে যাবে মাঠ ছেড়ে
লাল-হলুদের সেই ছাপ ছেড়ে
স্টেডিয়ামের সেইসব দর্শক লাফাবে।
জার্সি ভিজে যাবে পুরো ঘামে,
উড়ছে পতাকা স্টেডিয়ামে
আমাদের চোখেমুখে ভরা বারুদ
দুনিয়া চেনে একটাই নামে
সুযোগ বুঝে এক কিক
সবুজ ঘাস থেকে সোজা জালেতে বল
টিমের নতুন ট্যাকটিক
তুমি যতই মশালে ছিটাও জল।
নিভবে না কখনও ইস্টবেঙ্গল
নিভবে না কখনও ইস্টবেঙ্গল
ওওও
বুকের ভিতর একটাই দল
ওওও
ফুটবল মানেই ইস্টবেঙ্গল ।
একশো বছর ধরে লিরিক্স
Itihash sakkhi holo
Paye paye swapno elo
Katatar topkalo Football
Rokte chilo je laal
Jollo Holud Moshal
Fele asha smriti ta sombol.
Jersey manei amar maa
Aar toh kichui jani na
Sobuj ghase lorai kore
Chiniye nebo joy
Eksho Bochor Dhore
Math kapacche je dol
Laal holuder jhorer naam 
East Bengal.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *